লক্ষ্মীপুর   মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০  

শিরোনাম

রহিম রুপবান এখন রিফুজি (২য় অংশ)

স্টাফ রিপোর্টার    |    ১১:০৬ এএম, ২০২০-০৭-০৫

রহিম রুপবান এখন রিফুজি (২য়  অংশ)

 

রুপ আছে কিনা বলতে পারব না।তবে ঘটনার আগে  বিবাহের পূর্বে তার সতীত্ব বজায় ছিল এটি মোটামুটি হিস্টরি থেকে জানা যায়। তাছাড়া তার নাম রুপবান হবেই বা কেন? তবে তার পোশাক-আশাকে শালীনতা ছিল। সর্বোচ্চ ক্ষমতাধরের চেলা পালা  কর্তিক ধর্ষিতা হওয়ার পরে রপবান কে শুধু স্বামী হারাতে হয় নি; হয়েছে নিজের ও স্বামী  ভূমি হারাতে!

রুপবানের পুরো নাম রুপভানু  বেগম ওরফে রুপ বান। লেখাপড়া মক্তবে।শতভাগ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে জীবন যাপন। স্বচ্ছল সংসারে জন্ম। বাবার ধানি-জমি ও মাছের পুকুর আছে। স্বামীর আছে চিংড়ির ব্যবসা। 6 মাস পূর্বে বিবাহিতা। স্বামী স্থানীয় এলাকার মাঝি। মায়ানমার মুসলিম মোড়ল দেরকে মাঝি বলা হয়। কুলাঙ্গার কর্তৃক নির্যাতনের শুরুতেই সে এবং তার স্বামীসহ পালানোর কালে পথি মধ্যে ধর্ষণের শিকার হল।

স্বামীকে বেঁধে রেখে রূপবান কে ধর্ষণ করা হলো। ধর্ষণের পর মহা উৎসবের মধ্য দিয়ে রুপবানের স্বামীকে হত্যা করে 6 টুকরা করা হলো।

14 জন কুলাঙ্গার কর্তৃক ধর্ষিতা রুপবানের অচল দেহ রহিমের ঘাড়ে। পুরুষ মানুষের ঘাড়ে একজন নব বিবাহিতা এবং বিধবা নারী। যার দেহে ধর্ষণের ক্ষতবিক্ষত চিহ্ণ বিদ্যমান। আর যার ঘাড়ে ভর করে সে কোনমতে বেঁচে আছে ,সে রহিমের স্বজন হারানোর শোক এবং গর্ভধারিনী মা চোখের সামনে কুলঙ্গার কর্তৃক ধর্ষিত এবং নিহত হওয়ার যন্ত্রনা।
মানবাধিকারের যুগে এর চেয়ে করুণ চিত্র আর কি হতে পারে। 

এ চিত্র কোন ক্যামেরায় ওঠেনি। তখন তো রাত্রির অন্ধকার। তাদের কাছে কোন এন্ড্রয়েড ফোন ছিল না। স্যাটেলাইট ওয়েব কিন্তু তখন কাজ করেনি। তাদের বর্ণনা আমি শুনেছি। রহিম রুপবানের এ সংবাদটি আরো একটি দুর্ভাগ্য।

রাতের অন্ধকারে এ রকম একটি অবস্থায়  নাফ নদীর তীরে এসে পৌঁছল। বাংলাদেশের সীমান্তে আশ্রয় নেওয়ার জন্য আসবে। কিন্তু তখন নদীতে নৌকা নেই, বৃষ্টি পড়ছিল। নদীর তীরে তারা সুযোগ খুঁজছিল পার হওয়া। ভোর হওয়ার সাথে সাথে অদূরেই দেখা পায় একটি ভেলা। ভেলাটি পানিতে নেমে টেনে আনতে রহিম এবং রুপবানের অনেক কষ্ট হল ।

ভেলায় চড়ে রহিম রুপবান চলে আসে টেকনাফ সীমান্ত দিয়ে উখিয়া থানার মধু ছাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ের পাদদেশে এক টুকরো ভূমিতে আশ্রয় নিতে।
দুজনের পরনেই ভিজা কাপুর। পকেট এ কোন টাকা নেই। থাকার জায়গা নেই। ঘর নেই , তাবু নেই। সেভাবেই দিনের বেলায় তারা দুজনে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জায়গা সিলেকশন করে অবস্থান করে।

সবকিছু হারিয়ে সর্বহারা! রহিম মানসিকভাবে মৃতপ্রায়। কিন্তু রুপবান? তার মুখে কষ্টের হাসি।অসহায়ের হাসি পৃথিবীর ওজনের মত ভার বহন থেকে সে বেচে গেছে এই মনে করে আর তো তাকে ধর্ষিতা' হতে হবে না। তার হাসিতে বোঝা যাচ্ছিল জীবনে সে নতুন করে জন্ম লাভ করেছে।

জাতীসংঘের একটি সংস্থা কর্তৃক রহিম রুব্বান কে দেয়া হয় "ডিগনিটি কিট"অর্থাৎ তাদেরকে কাপড়চোপড় প্রয়োজনীয় শরীর ঢাকার জন্য জিনিসপত্র।অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক পলিথিন দিয়ে তৈরি করে দেওয়া হয় তাদের থাকার জন্য দুইটি ঘর। অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক তৈরি করে দেয়া হয় বাথরুম। অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক তাৎক্ষণিকভাবে সরবরাহ করা হয় শুকনো খাবার।অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয় কিছু নগদ টাকা। অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক তৈরি করে দেয়া হয় রান্নার চুলা ,সরবরাহ করা হয় রান্নার বাসন পত্র।অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক সরবরাহ করা হয় সুস্থ থাকার চিকিৎসাপত্র, ঔষধ পত্র। অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক ব্যবস্থা করা হয় তাদের সাধারণ শিক্ষার।অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক তৈরি করে দেয়া হয় তাদের প্রার্থনা করার জন্য মসজিদ।অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক তৈরি করে দেয়া হয় ক্যাম্পের মধ্যে যাতায়াতের জন্য রাস্তা।অন্য একটি সংস্থা কর্তৃক তৈরি করে দেয়া হয় চিত্তবিনোদনের জায়গা।  রহিম রুপবানের মত এ সমস্ত মানুষকে জীবন ধারণের সার্বিক ব্যবস্থা করে দেওয়া হয়।তারা বাংলাদেশ তথা মাদার অব হিউম্যানিটি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট কৃতজ্ঞ। 

নিজের দেহের সতীত্ব নষ্ট করা, নির্যাতন সহ্য করা, বৃদ্ধ মাতার ধর্ষন পূর্বক হত্যা করা ,নিজের কন্যা সন্তানকে হারানো ,বিবাহযোগ্য বোনকে ধর্ষণ করে হত্যা করা, নিজের স্ত্রীর  মৃত্যু,চোখের সামনে স্বামীকে বেঁধে রেখে 14 জন দারা  স্ত্রীকে ধর্ষণ করে স্বামীকে হত্যা করা! এত কিছুর পরেও যদি মাতৃভুমি ফিরে পায় সে আশায় দিন যাচ্ছে তাদের। 

তাদের এই ঘটনাটা চিত্রায়িত করে কোন ব্যবসায়ী প্রযোজক পরিবেশক যদি সিনেমা, যাত্রা বা নাটক আকারে প্রকাশ করে তাহলে আমার ধারণা আমাদের দেশে করা রহিম রূপবান যাত্রার চেয়েও অনেক আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন ভাবে তাদের জীবনালেখ্য চিত্রায়িত হতে পারবে।

এ রকম অনেকগুলি ঘটনারই বাস্তবতা আছে। কিন্তু তাদের কাছে ক্যামেরা ছিলনা ,ছবি নেই ,চিত্র নেই, হিস্টরি লেখার মত গদ্যকার নেই  কবি নেই তাদের মত করে তুলে ধরার মতো পোর্টাল নেই, সাংবাদিক নেই ,নেই অনেক কিছুই।

পৃথিবীর কোন না কোন রাজা মহারাজার উচিত তাদের কে মায়ানমার ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করা।যুদ্ধ করে  নিজের রীরত্ব আর রাজত্বের ইতিহাস দীর্ঘ না করে রোহিঙ্গাদের মায়ানমার পাঠানোর ভূমিকা রেখে মুনুষত্বের পুরোহিত হওয়ার সুযোগ নেওয়া উচিত। যেমন টি আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ তার মানবতা তুলে ধরেছে।

রহিম রুব্বান এভাবেই যাত্রা শুরু করেছে তা প্রায় দুই থেকে তিন বছর হয়ে গেল। দেখা যাক তারা আর কত সময় পার করে।
সবকিছুর বিনিময়ে মাতৃভুমিতে যাওয়ার যাত্রা কি ভাবে মন্ঞ্চায়ন হয় সে চিত্রের অপেক্ষায় বিশ্বের আমজনতা

মোঃ ইমাউল হক পিপিএম
ইন্টেলিজেন্স এন্ড মিডিয়া সেল
১৪ পুলিশ ব্যাটালিয়ন
কক্সবাজার

রিটেলেড নিউজ

ধর্ষিতা কি মানুষ নয়? মোঃ আরিফুল ইসলাম

ধর্ষিতা কি মানুষ নয়? মোঃ আরিফুল ইসলাম

লক্ষ্মীপুর৭১অনলাইন : ধর্ষিতা কি মানুষ নয় মোঃ আরিফুল ইসলাম  আজো মোরা দেখতে হবে দু "চোখ মেলে চাহিয়া, মানতে হবে খুন খার...বিস্তারিত


কে করিলো হত্যা তবে কি বাপ মা বলছেন মিথ্যা

কে করিলো হত্যা তবে কি বাপ মা বলছেন মিথ্যা

লক্ষ্মীপুর৭১অনলাইন : মাত্র ভোর হলো। চারপাশ জেগে উঠতে শুরু করেছে। ২টা জমজ মেয়েকে খুন করা হয়েছে। মেয়ে ২টার বয়স ১৩ বছর। দু...বিস্তারিত


তার প্রথম প্রকাশিত যৌথ কাব্যগ্রন্থ

তার প্রথম প্রকাশিত যৌথ কাব্যগ্রন্থ "মনের অলিন্দে তুমি"।

সুবীর সিকদার (পিরোজপুর) :   আজ ২৪ শে সেপ্টেম্বর ২০২০ হাতে পেলাম আমার জীবনের প্রথম প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থ "মনের অলিন্দে তু...বিস্তারিত


ওরা গাইতে পারলেও নেই সামাদর

ওরা গাইতে পারলেও নেই সামাদর

আহাম্মদ কবির (সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি) : নগর জীবনের নানা নাগরিক সুবিধায় অনেকেই শিল্পী হয়ে ওঠেন। সফটওয়ার নির্ভরতাসহ আধুনিক যুগের তথ্য প্রব...বিস্তারিত


আধুনিক শিশু গল্প আতাউর রহমান রাব্বি

আধুনিক শিশু গল্প আতাউর রহমান রাব্বি

শাহাদাত হোসেন(কমলনগর উপজেলা) :   যখন একটা শিশু জন্মগ্রহণ করে তখন তার পরিবারের মাঝে হাসি-খুশি আর আনন্দ বয়ে আসে। তখন সেই পরিবারের ...বিস্তারিত


ধ্রুপদের কবিকথা এবং আমারে দেবো না ভুলিতে শীর্ষক নজরুল স্মরণোৎসব

ধ্রুপদের কবিকথা এবং আমারে দেবো না ভুলিতে শীর্ষক নজরুল স্মরণোৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ৪৪ তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষ্যে চট্টগ্রামের বিখ্যাত ও স্বনামধন্য সাংস্ক...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

হয় মিটার ভাড়া বাদ দিন নতুবা আমাদের জমির ভাড়া দিন (পল্লী বিদ্যুৎ)

হয় মিটার ভাড়া বাদ দিন নতুবা আমাদের জমির ভাড়া দিন (পল্লী বিদ্যুৎ)

স্টাফ রিপোর্টার : শেখ হাসিনার উদ্দ্যেগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ। বর্তামানে প্রায়ই অধিকাংশ ঘরে বিদ্যুৎ আছে। প্রতিমাসে দিতে হ...বিস্তারিত


লক্ষ্মীপুরে ডোবা থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

লক্ষ্মীপুরে ডোবা থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি ব্যুরো(রবিন হোসেন তাসকিন) : লক্ষ্মীপুরে ডোবা থেকে চম্পা বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার (১১ অক্টোবর) দু...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর