লক্ষ্মীপুর   সোমবার, ২৬ অক্টোবর ২০২০  

শিরোনাম

প্রতারণার মাধ্যমে বিয়ে সংক্রান্ত ঘটনা এবং আইনের সাহায্য যেভাবে নিবেন

লক্ষ্মীপুর৭১অনলাইন    |    ০৩:০৬ এএম, ২০২০-১০-০২

প্রতারণার মাধ্যমে বিয়ে সংক্রান্ত ঘটনা এবং আইনের সাহায্য যেভাবে নিবেন

বিয়ে সংক্রান্ত প্রতারণার ঘটনা প্রতিনিয়তই বাড়ছে।  এবং বিয়ে-সংক্রান্ত অপরাধ হিসেবে এসবের রয়েছে আইনগত প্রতিকার। প্রতারণার মাধ্যমে বিয়ে, স্বামী বা স্ত্রী থাকা স্বত্বেও বিয়ে, দ্বিতীয় বিয়ে করলে ও আগেত বিয়ে গোপন রাখা, আইনসম্মতভাবে বিয়ে না করা, স্বামীর অজ্ঞাতে মিলামেশা করা, ফুসলিয়ে কোন বিবাহিত মহিলাকে নিয়ে যাওয়া, প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া দ্বিতীয় বিয়ে করা এমন সব ঘটনা অহরহ হচ্ছে।

দণ্ডবিধিতে বিয়ে-সংক্রান্ত এমন সব অপরাধের শাস্তির বিধান রয়েছে, যার বেশিরভাগ অপরাধই জামিনের অযোগ্য।

প্রতারণার মাধ্যমে বিয়ে করলে ১০ বছর কারাদন্ড:

★যদি কেউ কোনো নারীকে ধোকা বা প্রতারণা করে আইনসম্মত বিবাহিত বলে বিশ্বাস করায়, কিন্তু আদৌ ঐ বিয়ে আইনসম্মত ভাবে নাহয় এবং  নারীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক গড়েন, তবে অপরাধী 10বছর পর্যন্ত যে কোনো মেয়াদে সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ড এবং অর্থদণ্ড দণ্ডিত হবেন।

★পুরুষ অথবা নারীর স্বামী/স্ত্রী  থাকার পরেও বিয়ে করে ৭বছর কারাদণ্ডঃ

যদি কোনো ব্যক্তি এক স্বামী অথবা এক স্ত্রী জীবিত থাকা পরেও আবার ২য় বিয়ে করেন, তাহলে দায়ী ব্যক্তি সাত বছর পর্যন্ত বিভিন্ন মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত হবেন এবং অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন।
তবে যে সাবেক স্বামী বা স্ত্রীর জীবদ্দশায় বিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে, বিয়ের সময় পর্যন্ত সে স্বামী বা স্ত্রী যদি সাত বছর পর্যন্ত নিখোঁজ থাকেন এবং সেই ব্যক্তি বেঁচে আছেন বলে কোনো খবর না পেয়ে থাকেন, তাহলে এ ধারার আওতায় তিনি শাস্তি যোগ্য অপরাধী বলে গণ্য হবেন না।

★২য় বিয়ে করলে ও আগের বিয়ে গোপন রাখলে শাস্তি ১০ বছর:

যদি কোনো ব্যক্তি দ্বিতীয় বা পরবর্তী বিয়ে করার সময় প্রথম বা আগের বিয়ের তথ্য গোপন রাখেন, তা যদি দ্বিতীয় বিবাহিত ব্যক্তি জানতে পারেন, তাহলে অপরাধী ১০ বছর পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দন্ডিত হবেন এবং অর্থদন্ডে ও দন্ডিত হবেন।

★আইনসম্মত বিয়ে না হলে ৭ বছর জেল:

যদি কোনো ব্যক্তি আইনসম্মত বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা ব্যতীত প্রতারণামূলক ভাবে বিয়ে সম্পন্ন করেন, তাহলে অপরাধী ৭ বছর পর্যন্ত সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদ- এবং অর্থদণ্ডে দণ্ডিত  হবেন।

★স্বামীর অগচরে মিলামেশা করলে সাতবছর জেল:

যদি কোনো ব্যক্তি এমন কোনো রমনির সঙ্গে তার স্বামীর অমতে যৌন সম্পর্কে  লিপ্ত হয় এবং অনুরূপ যৌন সঙ্গম যদি ধর্ষণের অপরাধ না হয়, তাহলে সে ব্যক্তি ব্যভিচারের দায়ে দায়ী হবে, যার শাস্তি সাত বছর পর্যন্ত যে কোনো মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদন্ড সহ উভয় দণ্ডেদণ্ডিত হবেন। এ ক্ষেত্রে নির্যাতিতাকে অন্য লোকের স্ত্রী হতে হবে। তবে ব্যভিচারের ক্ষেত্রে স্ত্রীলোকের কোনো শাস্তির বিধান আইনে নেই।

★ফুসলিয়ে কোন বিবাহিত নারীকে নিয়ে গেলে ২ বছরের জেল:
কোনো বিবাহিত নারীকে অন্যের স্ত্রী জানা সত্ত্বেও ফুসলিয়ে অথবা প্ররোচনার মাধ্যমে যৌনসঙ্গম করার উদ্দেশ্যে কোথাও নিয়ে যাওয়া এবং তাকে অপরাধজনক উদ্দেশ্যে বন্ধী রাখা অপরাধ। এ ধারা অনুযায়ী অপরাধী ব্যক্তি দুই বছর পর্যন্ত যেকোনো মেয়াদের সশ্রম বা বিনাশ্রম কারাদণ্ড- এবং অর্থদণ্ড-সহ উভয় দণ্ডের শাস্তি পাবে।

★১ম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া দ্বিতীয় বিয়ে করলে এক বছরের জেল:

কোনো মুসলমান ব্যক্তি ১ম স্ত্রী থাকলে সালিসি পরিষদের অনুমতি ছাড়া এবং প্রথম স্ত্রীর অনুমতি ছাড়া অন্য ১টি বিবাহ  করেন, তাহলে তিনি ১৯৬১ সালের মুসলিম পারিবারিক আইন অধ্যাদেশের ৬ (৫) দারায় তিনি শাস্তিযোগ্য অপরাধ করবেন। অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত প্রমাণিত হলে ঐ ব্যক্তিকে ১ বছর পর্যন্ত বিনাশ্রম কারাদণ্ড, অথবা দশ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা অথবা উভয় দণ্ড,হতে পারে।
অনুমতির জন্য ফি দিয়ে নিজ এলামার চেয়ারম্যানের কাছে আবেদন করতে হবে। উল্লেখ্য, সালিশি পরিষদে যদি বর্তমান স্ত্রী অনুমতি না দেন, তাহলে কোনো ভাবেই তিনি আরেকটি বিয়ে করতে পারবে না।

২য় বিবাহ করার কারণে প্রথম স্ত্রী যদি সন্তানদের নিয়ে ভিন্নভাবে বসবাস করতে চান তারপরেও স্বামীকে তার প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণপোষণ এ-র ভার দিতে  হবে। স্ত্রী ও সন্তানদের ভরণপোষণ ভার বহন করিতে স্বামী আইনত বাধ্য থাকিবে। ভরণপোষণ ছাড়াও স্ত্রী ও সন্তানরা তার সম্পদের উত্তরাধিকারীর অধিকার লাভ করবেন এবং মোহরানার টাকা পরিশোধ করা না হলে বকেয়া ভূমি রাজস্ব আদায়ের মতো আদায় করা হবে।

এমনকি পূর্বের স্ত্রী তার স্বামীর থেকে তালাকের আবেদন করতে পারেন। মুসলিম বিবাহ তালাক আইন 1939 অনুযায়ী ভুক্ত ভোগী ঐ স্ত্রী তার এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের কাছে তালাকের  জন্য আবেদন করতে পারবেন।
★ কোথায় এবং কীভাবে আইনের আশ্রয় নিতে হবে?
বিবাহ-সংক্রান্ত অপরাধের জন্য অভিযোগ থানা বা আদালতে গিয়ে চাইতে পারে। থানায় এজাহার হিসেবে মামলা দায়ের করতে হবে। যদি পুলিশ  মামলা না নিতে চায় তাহলে সরাসরি ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে গিয়ে মামলা দায়ের করতে পারবে। অনেকে থানায় না গিয়ে সরাসরি আদালতে মামলা করে থাকেন। এটাতে কোনো সমস্যা নেই।
- এম টি উল্যাহ আইনজীবী

রিটেলেড নিউজ

গাজীপুরে সকালে নিখোঁজ রাতে মিললো মোফাজ্জলের লাশ

গাজীপুরে সকালে নিখোঁজ রাতে মিললো মোফাজ্জলের লাশ

লক্ষ্মীপুর৭১অনলাইন :   গাজীপুরে সকালে নিখোঁজ রাতে মিললো মোফাজ্জলের লাশ গাজীপুরে একটি বিলের পাশ থেকে মোফাজ্জল হোসে...বিস্তারিত


তাহিরপুর মোবাইল কোর্টে জব্দকৃত বালু উন্মুক্ত নিলাম

তাহিরপুর মোবাইল কোর্টে জব্দকৃত বালু উন্মুক্ত নিলাম

আহাম্মদ কবির (সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি) : তাহিরপুর মোবাইল কোর্টে জব্দকৃত বালু উন্মুক্ত নিলাম              সুনামগঞ্জ তাহিরপুর উপজেলা...বিস্তারিত


তাহিরপুর সীমান্তে পৃথক দুটি অভিযানে বিদেশি  মাদক আটক এক

তাহিরপুর সীমান্তে পৃথক দুটি অভিযানে বিদেশি মাদক আটক এক

আহাম্মদ কবির (সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি) : তাহিরপুর সীমান্তে পৃথক দুটি অভিযানে বিদেশি  মাদক আটক এক   সুনামগঞ্জ তাহিরপুর সীমান্তে পৃথক ...বিস্তারিত


টাঙ্গাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর গোসলের দৃশ্য ভিডিও ধারণ আটক দুইজন

টাঙ্গাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর গোসলের দৃশ্য ভিডিও ধারণ আটক দুইজন

লক্ষ্মীপুর৭১অনলাইন :   টাঙ্গাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীর গোসলের দৃশ্য ভিডিও ধারণ আটক দুইজন   টাঙ্গাইলের সখীপু...বিস্তারিত


ছাতকে দুপক্ষের সংঘর্ষ নারী সহ আহত ১০

ছাতকে দুপক্ষের সংঘর্ষ নারী সহ আহত ১০

লক্ষ্মীপুর৭১অনলাইন : ছাতকে সংঘর্ষে  নারীসহ আহত ১০ ছাতক প্রতিনিধি ছাতকে দুপক্ষের সংঘর্ষে যুবতীনারী সহ আহত ১০ জনের ...বিস্তারিত


লক্ষ্মীপুরে রাজ-মিস্ত্রীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম : প্রতিবাদে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

লক্ষ্মীপুরে রাজ-মিস্ত্রীকে কুপিয়ে গুরুতর জখম : প্রতিবাদে গ্রামবাসীর মানববন্ধন

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি ব্যুরো(রবিন হোসেন তাসকিন) : লক্ষ্মীপুরে মোহাম্মদ ফারুক হোসেন (২৮) নামে এক রাজমিস্ত্রিকে কুপিয়ে গুরুতর  জখম করেছে তার প্রতিব...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

হয় মিটার ভাড়া বাদ দিন নতুবা আমাদের জমির ভাড়া দিন (পল্লী বিদ্যুৎ)

হয় মিটার ভাড়া বাদ দিন নতুবা আমাদের জমির ভাড়া দিন (পল্লী বিদ্যুৎ)

স্টাফ রিপোর্টার : শেখ হাসিনার উদ্দ্যেগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ। বর্তামানে প্রায়ই অধিকাংশ ঘরে বিদ্যুৎ আছে। প্রতিমাসে দিতে হ...বিস্তারিত


লক্ষ্মীপুরে ডোবা থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

লক্ষ্মীপুরে ডোবা থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার

লক্ষ্মীপুর জেলা প্রতিনিধি ব্যুরো(রবিন হোসেন তাসকিন) : লক্ষ্মীপুরে ডোবা থেকে চম্পা বেগম (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার (১১ অক্টোবর) দু...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর